-

 বাংলাদেশে ঘুরে বেড়ানোর মতো আকর্ষনীয় স্থান সমূহের নাম | Part: 1

আজ আপনাদের দেখাবো বাংলাদেশে ঘুড়ে বেড়ানোর জন্য চমৎকার কিছু স্থান। আপনারা অবসরে এগুলো থেকে সহজেই ঘুরে  আসতে পারেন। (লেখাটি অনেক বড় হয়ে গেছে তাই  দুটি অংশে ভাগ করে লেখা হয়েছে ২য় অংশটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন : বাংলাদেশে ঘুরে বেড়ানোর মতো আকর্ষনীয় স্থান সমূহের নাম | Part: ২)

১) সিলেট এর – হযরত শাহ্ জালাল (রহঃ) মাজার, হযরত শাহ্ পরান (রহঃ) মাজার, হযরত শাহ্ জালাল (রহঃ) বিঞ্জান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চিড়িয়াখানা, সুরমা নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য), শ্রীমঙ্গলের চা-বাগান, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান, তামাবিল, জাফলং, লালখাল, বিছানাকান্দি নদী, হাকালুকির হাওর, রাত্তারগুল, সোয়াম্প ফরেষ্ট, ভোলাগঞ্জের পাথর কোয়ারী, উতমাছড়ার পাথররাজ্য, জাকীগঞ্জ, জৈন্তাপুর, যাদুকাটা নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য), ড্রিমলেন্ড ওয়াটার পার্ক।
বিশেষত্বঃ সিলেট এর – কমলালেবু, আনারস ভালো, চা এর জন্য প্রশিদ্ধ এবং শ্রীমঙ্গলের সাত রং এর চা  ।

২)দিনাজপুর এর –রামসাগর দিঘী, কবিগুরু রবীন্দনাথ ঠাকুরের কুঠিবাড়ী।
বিশেষত্বঃ কাটারীভোগ চাল, চিড়া, পাপড় ভালো, সুমিষ্ট লিচুর জন্য প্রশিদ্ধ ।

৩)পঞ্চগড় এর – গাজী চা বাগান, বাংলাবান্দা স্হল বন্দর।
বিশেষত্বঃ এর – চা ভালো ।

৪) রংপুর এর – পায়রাবন্দ জমিদার বাড়ী, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, তাজহাট জমিদার বাড়ী (বর্তমানে যাদুঘর হিসাবে ব্যবহ্ত হচ্ছে), টেপাঠাকুর জমিদার বাড়ী, মন্থনার জমিদার বাড়ী, পীরগাছার দেবী চৌধুরাণীর রাজবাড়ী, ইটাকুমারীর জমিদার শিবচন্দ্র রায় এর রাজবাড়ী, চিকলির বিল, হযরত কেরামত আলী জৌনপুরী (রহঃ) মাজার ও মসজিদ, রংপুর চিড়িয়াখানা, রংপুর মেডিকেল কলেজ, শতবষী’ কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, ঘাঘট প্রয়াস পার্ক, শিরীন পার্ক, কাউনিয়ার আনন্দ মঠ, নিসবেতগঞ্জের শতরঞ্জী পল্লী, পাগলাপীরে ভিন্নজগৎ পার্ক, আনন্দনগর, জলঢাকার তিস্তা ব্যারেজ প্রকল্প, রংপুর তুলা গবেষণা কেন্দ্র, কৃষি গবেষণা কেন্দ্র।
বিশেষত্বঃ শ্যামপুর চিনিকলের চিটাগুড় ভালো, আখ, হাড়ি ভাঙ্গা আম, শতরঞ্জি, তামাকের জন্য প্রশিদ্ধ ।

৫)গাইবান্ধা এর – যমুনা নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য), ফুলছড়ি বালাসীঘাট (রেলওয়ে ওয়াগন ঘাট)।
বিশেষত্বঃ গাইবান্ধা এর- রসমুঞ্জরী ভালো ।

৬) নীলফামারী এর – নীলসাগর, ফুলবাড়ীর স্বপ্নপুরী থীম পার্ক।
বিশেষত্বঃ পিঠাপুলি, গমের জন্য প্রশিদ্ধ ।

৭) নাটোর এর – কবিগুরু রবীন্দনাথ ঠাকুরের কুঠিবাড়ীল।
বিশেষত্বঃ নাটোর এর – কাঁচাগোল্লা ভালো ।



৮) রাজশাহী এর – হযরত শাহ্ মখদুম (রহঃ) মাজার, হযরত শাহ্ দৌলা (রহঃ)ও তাঁর ছেলে শাহ্ আব্দুল হামিদ দানিশমন্দ (রহঃ) মাজার, বাঘার পাঁচশত বছরের সুপ্রাচীন মহল পুকুর দীঘি, বরেন্দ্র যাদুঘর, পদ্মা নদীর তীরস্হ শহর রক্ষা বাঁধ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও আম্রবাগান, বিখ্যাত ফজলী আমের বাগান, পুটিয়া রাজবাড়ী, চাঁপাই নবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের হযরত নিয়ামত উল্লাহ শাহ (রহঃ) এর মাজার।
বিশেষত্বঃ রাজশাহী এর কালাই রুটি, লিচু ভালো, শিল্ক বস্ত্র, ফজলী আমের জন্য প্রশিদ্ধ ।

৯) নওগাঁ এর – পাহাড়পুর বৈদ্ধ-বিহার।

১০) বগুড়া এর – মহাস্হানগড় যাদুঘর, বেহুলা সুন্দরীর বাসরঘর, করতোয়া নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য)।
বিশেষত্বঃ বগুড়া এর মালভোগ কলা ভালো, কুমড়া বড়ি, দই এর জন্য প্রশিদ্ধ ।

১১) পাবনা এর – চরনবিল, রাজেন্দ্রমোহন জমিদার বাড়ী, পাকশি ব্রিজ, পদ্মা নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য)।
বিশেষত্বঃ পাবনা এর – ঘি ভালো, লঙ্গি গামছার জন্য প্রশিদ্ধ ।

১২) সিরাজগজ্ঞ এর – যমুনা বহুমুখী সেতু, যমুনা রিসোট।
বিশেষত্বঃ সিরাজগজ্ঞ এর – মাখন ভালো, ধানশিঁড়ির দই, লুঙ্গি, গামছা এর জন্য প্রশিদ্ধ ।

১৩) টাঙ্গাইল এর – মহেরাপ্যালেস রাজবাড়ী, ধনবাড়ি জমিদার বাড়ী, আনসার এন্ড ভি.ডি.পি একাডেমী, মধুপুরের গড়।
বিশেষত্বঃ টাঙ্গাইল এর – চমচম ভালো, তাঁতের শাড়ী, লুঙ্গির জন্য প্রশিদ্ধ ।

১৪) নরসিংদী এর – উয়রি ও বটেশ্বর গ্রামের প্রত্নতত্ত্ব, ড্রীম হলিডে এমিউসমেন্ট পার্ক, মাধবদীর বালাপুর লক্ষন সাহার জমিদার বাড়ী, নবীন সাহার জমিদার বাড়ী।
বিশেষত্বঃ নরসিংদী এর – দধি, কলা ভালো, ড্রাগন ফলের জন্য প্রশিদ্ধ ।

১৫) গাজীপুর এর – ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান, রাজেন্দ্রপুর ক্যান্টনমেন্ট সন্নিহিত এলাকা, “ফেন্টাসী কিংডম” এমিউজমেন্ট পার্ক, নন্দন পার্ক, বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক, নূহাষ পল্লী, কালিয়াকৈর ঢাকা রিসোট’, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনিষ্টিটিউট, কালিগঞ্জের কাছে পলাশ উপজেলার ডাংগা বাজার সংলগ্ন লক্ষ্মণ সাহার জমিদার বাড়ি।
বিশেষত্বঃ গাজীপুর এর – কাঁঠাল, পেয়ারা ভালো ।

১৬) ঢাকা এর – লালবাগের দুগ’, ছোট কাটরা, বড় কাটরা, হোসনী দালান, আহসান মঞ্জিল, চীন বাংলাদেশ মৈত্রী (বুড়িগঞ্জা) সেতু, শাহবাগ জাতীয় যাদুঘর, জাতীয় শিশু পার্ক, হাতীরঝিল-বেগুনবাড়ী প্রকল্প এলাকা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, কাজ’ন হল, ভাষা শহীদ মিনার, জাতীয় তিন নেতার সমাধী, মিরপুর জাতীয় চিড়িয়াখানা ও সন্নিহিত বোটানিক্যাল গাডে’ন, মিরপুর সামরিক যাদুঘর ও বিমান বাহিনী যাদুঘর, আগারগাঁ বিজ্ঞান যাদুঘর, বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটার, বলধা গাডে’ন, জাতীয় সংসদ ভবন, চদ্রিমা উদ্যান, সরোওয়াদি’ উদ্যান ও মুক্তিযুদ্ধের শিখা চিরন্তন, রায়েরবাজার বুদ্ধিজীবি স্মৃতিস্তম্ভ, সাভার জাতীয় স্মৃতি সৌধ, সাভারের সাদুল্লাপুর গোলাপ গ্রাম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, সাভারের বাংলাদেশ প্রাণী সম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বিএলআরআই)লেক, হযরত শাহজালাল আন্তজা’তিক বিমান বন্দরের সুবিশাল ঝিল।
বিশেষত্বঃ ঢাকা এর – বাঁকরখানী ভালো, মিরপুর বেনারসী শাড়ীর জন্য প্রশিদ্ধ ।

১৭) নারায়নগঞ্জ এর – সিদ্ধিরগজ্ঞ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র, সিদ্ধিরগজ্ঞ জামদানী শাড়ী পল্লী, ফেঞ্চুগঞ্জ সার কারখানা, বাংলার তাজমহল, পানাম সিটি, সোনারগাঁ পল্লী যাদুঘর, নবাবগঞ্জ জমিদার বাড়ী, রুপগঞ্জের মুড়াপাড়া রাজবাড়ী, শীতলক্ষা নদী।
বিশেষত্বঃ নারাযনগঞ্জ এর – গেঞ্জি, গামছা ভালো, সিদ্ধিরগঞ্জ জামদানী শাড়ীর জন্য প্রশিদ্ধ ।

১৮) কুমিল্লা এর – ধম’সাগর, কবি নজরুল ইসলাম যাদুঘর, কোটবাড়ী পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, শালবন বৈদ্ধ-বিহার, রুপবান মুরা, ইটাখলা মুরা, নুরজাহান ইকো পার্ক, ব্লু- ওয়াটার পার্ক, লালমাই পাহাড়, ময়নামতির সেকেন্ড ওয়াল্ড’ ওয়ার সেমিট্রি, দাউদকান্ধীর মেঘনা-গুমতী নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য)।
বিশেষত্বঃ কুমিল্লা এর – মাতৃভান্ডারে রসমালাই, পেড়া ভালো, কারু পণ্য, খাদি খদ্দর বস্ত্রের জন্য প্রশিদ্ধ।

১৯) চাঁদপুর এর – পদ্না-মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর সঙ্গমস্হল, পুরাতন রেলওয়ে ষ্টেশন, হাজীগঞ্জ বড় মসজিদ,
বিশেষত্বঃ চাঁদপুর এর – তরমুজ, তাজা ইলিশ মাছ ভালো ।

২০) ময়মনসিংহ এর – ত্রিশালে কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, গজনী অবকাশ কেন্দ্র, মধুটিলা ইকো পার্ক।

বিশেষত্বঃ জামালপুর এর – ছানার পোলাউ, ছানার পায়েস ভালো, মুক্তাগাছার মন্ডা ভালো ।

২১) কিশোরগজ্ঞ এর – ভৈরব সড়ক ও রেল সেতু, মেঘনা নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য)।
বিশেষত্বঃ বাহ্মন-বাড়িয়া এর – দুধের সন্দেশ, তালের বড়া ভালো, বালিশ মিষ্টি ভালো ।

২২) সুনামগঞ্জ  এর- শিমুল বাগান, টাঙ্গুয়ার হাওর, জাদুকাটা নদী (নৌ-পথে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য)।
বিশেষত্বঃ সুনামগজ্ঞ এর – চা, কমলা, বাতাবী লেবু, ভালো ।

২৩) মৌলভীবাজার এর- শমশেরনগর ডানকান লেক, হাইল-হাওরের বাইক্কার বিল, মাধবকুন্ড প্রাকৃতিক ঝরণা, মাগুরছড়া ন্যাশনাল পার্ক, হবিগঞ্জের চুনারুঘাট সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান।
বিশেষত্বঃ মৌলভীবাজার এর – কমলালেবু, ম্যানেজার ষ্টোরের রসগোল্লা ভালো ।



২৪) চট্রগ্রাম এর – বড়তাকিয়ার খৈয়াছড়া ঝর্না, নাপিত্তাছড়া ঝর্না, সীতাকুন্ড চন্দ্রোনাথ পাহাড় ও ইকোপার্ক, মহামায়া রবারডেম প্রকল্প মিরসরাই, বড় দারোগারহাট কমলদহ ঝর্না, সুপ্তধারা ঝর্না, সহস্র ধারা ঝর্না, ফৌজদারহাট গল্ফ ক্লাব, কুমিরা ঘাট, আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, বাঁশবাড়িয়া সমুদ্র সৈকত, ক্যাফে ২৪, খেজুরতলা বীচ, ফৌজদারহাট শীপ ব্রেকিং ইয়াড’, ভাটিয়ারী লেক, পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত, গোল্ডন সী বিচ, হযরত শাহ্ আমানত (রহঃ) আন্তজাতি’ক বিমান বন্দর, প্রজাপতি পার্ক, নেভাল একাডমী, বাঁশখালী ইকোপার্ক, ফইল্লাতলী সাগরের পাড় ও ম্যানগ্রোভ বন, অভয়মিত্র ঘাট, চট্রগ্রাম নৃ-তাত্নীক যাদুঘর, রেলওয়ে সদর দপ্তর (সি.আর.বি) ও রেলওয়ে জাদুঘর, ঝাউতলা আবহাওয়া অফিস ও ব্র্যাক এর পাহাড়, ফয়েজলেক ওয়াটার ওয়াল্ড’ এন্ড এমিউসমেন্ট পার্ক, চট্রগ্রাম চিড়িয়াখানা, বাটালী পাহাড় (বিজয় স্তম্ভ), জিলাপী পাহাড়, ডি.সি হিল, কর্ণফুলী নতুন ব্রীজ, কালুরঘাট রেল সেতু, ফিরিঙ্গিবাজার ব্রীজ ঘাট/ফিসারী ঘাট (নৌ- ভ্রমন পিয়াসুদের জন্য), জাতিসংঘ পার্ক, বিপ্লব উদ্যান, সেকেন্ড ওয়াল্ড’ ওয়ার সিমেট্রি, হালদা নদী, কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ প্রকল্প সন্নিহিত এলাকা, হযরত শাহ্ আমানত (রহঃ) মাজার, হযরত গরীবুল্লা শাহ্ (রহঃ) মাজার, ফটিকছড়ির হযরত মাইজভান্ডার (রহঃ) দরগাহ্ কমপ্লেক্স, রাঙ্গুনিয়া ইকো পার্ক, কাপ্তাই ন্যাশনাল ফরেষ্ট, কাপ্তাইয়ের বিলাইছড়ি ধুপপানি ঝরণা, রাঙ্গুনীয়ার শেখ রাসেল এভিয়ারী এন্ড ইকো পার্ক, চন্দ্রোঘোনা কণ’ফুলী কাগজ কল, বেতবুনিয়া উপগ্রহ ভূ-কেন্দ্র, চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রাকৃতিক ঝরণা, ফটিকছড়ির চা-বাগান, কর্ণফুলি চা বাগান, খৈয়াছড়া চা বাগান, উদালিয়া চা বাগান, বারমাসিয়া চা বাগান, এলাহীনুর চা বাগান, রাঙাপানি চা বাগান, আছিয়া চা বাগান, নাছেহা চা বাগান, দাঁতমারা চা বাগান, হালদা ভ্যালী চা বাগান, পঞ্চবটি চা বাগান, মা জান চা বাগান, মোহাম্মদনগর চা বাগান, নেপচুন চা বাগান, রামগড় চা বাগান, আনোয়ারার হযরত শাহ মোহছেন আউলিয়া (রহঃ) মাজার, পারকি বীচ।
বিশেষত্বঃ চট্রগ্রাম এর – মধুবনের মিষ্টি, গণি বেকারীর বেলা বিস্কুট, লবণ, সামুদ্রিক মাছের শুঁটকি ভালো, ফটিকছড়ির মিষ্টি মরিচ, বাশখালীর লিচু, মেজবানী মাংসের ভোজের এর জন্য প্রশিদ্ধ ।

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: উল্লেখিত জেলা বা বিভাগ সমূহে যদি কোনো আকর্ষনীয় বা পর্যটন স্থান বাদ পরে থাকে এবং কোন ভূল হয়ে থাহলে আমাদের জানাবেন)

(২য় অংশটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন : বাংলাদেশে ঘুরে বেড়ানোর মতো আকর্ষনীয় স্থান সমূহের নাম | Part: ২)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ প্রকাশিত