-

How to Train Your Dragon 2 | মুভি রিভিও

How to Train Your Dragon 2
অ্যানিমেশন ফিল্ম পছন্দ করেন না এমন মানুষ পাওয়া দুষ্কর, আর আমার নিজের মতে অ্যানিমেশন ফিল্মের মাঝে আমার দেখা সেরা ফিল্ম হলো এই ফিল্মটি। ফিল্মটির যেমন গ্রাফিক্স তেমনি তাঁর স্টোরি লাইনআপ ঠিক তেমনি অসম্ভব সুন্দর বিভিন্ন ডায়লগ। এক কথায় কেউ যদি অ্যানিমেশন ফিল্মের সাজেষ্ট চায় আমি সবার আগে এই ফিল্মের নাম বলি।এই ফিল্মের প্রথম পর্বটা অনেক বছর আগে দেখেছি ২য়টা খুঁজে পাচ্ছিলাম না আজ হঠাৎ মনে হলো তাই দেখেই নিলাম আহা কি দারুণ ১০২ মিনিট সময় পাড় করলাম।ডাবিং গুলো এতো সুন্দর ছিলো যে মনেই হচ্ছিলো না পর্দার আড়ালে কারো কন্ঠ শুনছি ।

অ্যানিমেশন ফিল্ম তৈরির একটি আদর্শ জায়গা বলতে পারেন “DreamWorks Animation” প্রতিষ্ঠানটি, এই প্রোডাকশনের ফিল্ম হলেই চোখ বন্ধ করে বসে পরবেন ফিল্ম দেখতে।প্রথম ফিল্মের সফলতার পরে ঠিক চার বছর পরে এই ফিল্মের ২য় ভাগ বের হয় আর সেখানেও তারা সফলতা পায়,এবং পরিচালক আগে থেকেই জানিয়ে রেখেছেন এই ৩য় ভাগ ঠিক ২০১৯ সালেই বের হবে।গল্পের দারুণ কিছু মুহুর্ত আছে যা আসলেই দেখার মতোন।ফিল্মটির অতি জনপ্রিয়তার জন্য পরবর্তীতে এর আদলে ভিডিও গেমও বের হয়।

কাহিনীসংক্ষেপঃ
“হিক্যাপ” গল্পের মূল চরিত্র।ছোট্ট হিক্যাপ এখন আর ছোট্ট নেই এখন তার বয়স বিশ।ছোট বেলায় বাবা মায়ের দ্বন্দ্ব ছিলো এমন যে ড্রাগণ তাদের ক্ষতি করবে তাই বাবার মতামত ছিলো এদের মেরে ফেলতে হবে কিন্তু মায়ের চিন্তা ছিলো এরা অবুঝ প্রাণী এদের আস্তা দিলেই পোষ মেনে যাবে কিন্তু তার বাবা সে কথায় নারাজ এক পর্যায়ে ড্রাগণ হিক্যাপের মাকে নিয়ে চলে যায় আর ফিরে আসে না এরপর থেকেই হিক্যাপের বাবা সব ড্রাগণদের নিয়েই থাকতে থাকে।হিক্যাপ একজন দক্ষ ড্রাগন ট্রেইনার ছোট থেকেই “সে টুতলেস” কে প্রশিক্ষণ দিয়ে বড় করেছে।হঠাৎ একদিন হিক্যাপ দেখতে পায় কিছু লোককে যারা ড্রাগন শিকার করতে এসেছে এবং তার কাছ থেকেই পরে জানতে পারে কে একজন যেনো সব ড্রাগন শিকার করে নিজের আয়ত্বে আনতে চায়! গল্পের মূল আকর্ষণ এখান থেকেই শুরু আসলে সেই আগুন্তুক আসলে কে! ড্রাগন নিয়ে কি কাজ কিই বা তার উদ্দেশ্য! তো আর দেরি না করে যারা এখনো এই অসাধারণ ফিল্মটি দেখেন নি আজিই বসে পরেন দেখতে আশা করছি দারুণ লাগবে।তবে হ্যা আগে প্রথম পর্বটি দেখে নিবেন।আর একটা বিষয় গল্পকার খুব সুন্দরভাবে বুঝিয়ে দিয়েছেন ঐক্যবদ্ধভাবে থাকলে হয়তো কিছু কিছু সময় বিপর্যয় আসতে পারে কিন্তু জয় আসবেই ।

পরিচালকঃ ডীন ড্যাবলস
রচয়িতাঃ ডীন ড্যাবলস
কন্ঠদাতা-দাত্রীঃ জ্যায় বারুচেল,ক্যাট ব্ল্যানচেট,জেরার্ড বাটলার আরো অনেকে।
ধরণঃ অ্যানিমেশন, অ্যাকশন, এডভেঞ্চার।
ব্যাপ্তিকালঃ ১০২ মিনিট
মুক্তিসালঃ ১৩ জুন,২০১৪ইং
দেশঃ যুক্তরাষ্ট্র
বাজেটঃ $১৪৫মিলিয়ন
বক্সঅফিসঃ $৬২১.৫মিলিয়ন
আইএমডিবিঃ ৭.৮/১০
ব্যক্তিগত মতামতঃ ৮.৫/১০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ প্রকাশিত